logo
news image

শবে মেরাজের আমলের ফজিলত

এই পবিত্র মিরাজ শরীফের রাতে

ইবাদত এবং দিনে রোজা রাখার
প্রসঙ্গে কিছু বর্ননা-

বড়পীর সাহেব রহমতুল্লাহি আলাইহি
তার বিশ্বখ্যাত কিতাব “গুন্ইয়াতুত
তালিবীন” নামক কিতাবে শবে
মিরাজ-এর তথা রজব মাসে ২৭
তারিখের রোযার ফযীলত সম্পর্কে
হাদীছ শরীফগুলো বর্ণনা করেন। যেমন -

ﺍﻟﻠﻪ ﺑﻰ ﺹ ﺍﻟﻠﻪ ﺗﻌﺎﻟﻰ ﻋﻨﻪ ﻋﻦ ﺍﻝ ﻭﻋﻦ ﺍﺑﻰ
ﻫﺮﻳﺮﺓ ﺭ
ﻟﻴﻪ ﻭﺳﻠﻢ ﻗﺎﻝ ﻣﻦ ﺻﺎﻡ ﻳﻮﻡ ﺍﻟﺴﺎﺑﻊ
ﻭﺍﻟﻌﺸﺮﻳﻦ ﻣﻦ
ﺭﺟﺐ ﻛﺘﺐ ﻟﻪ ﺛﻮﺍﺏ ﺻﻴﺎ ﻡ ﺳﺘﻴﻦ ﺷﻬﺮﺍ .

অর্থাৎ, হযরত আবূ হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু
তায়ালা আনহু হতে বর্ণিত। তিনি
বলেন, হুযূর পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি
ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন, যে ব্যক্তি
রজব মাসের ২৭ তারিখে তথা শবে
মিরাজ শরীফ-এর দিবাভাগে রোযা
রাখবে তার আমলনামায় ৬০ মাসের
রোযা রাখার ছওয়াব লেখা হবে।
(সুবহানাল্লাহ)

[তথ্যসূত্রঃ আল ইতহাফ- ৫ম খন্ড ২০৮
পৃষ্ঠা;
আল মা’য়ানী আনিল হামলিল ইসফার,
প্রম খন্ড ৩৬৭ পৃষ্ঠা; গুনিয়াতুত্
তালিবীন; ক্বিসমুস্ ছায়ালিস-৩৩২
পৃষ্ঠা]


 এ প্রসঙ্গে উক্ত কিতাবে আরো
বর্ণিত আছে,-

ﺍﻟﻠﻪ ﺭ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻨﻪ ﻭﺳﻠﻤﺎﻥ ﺍﻟﻔﺎﺭ ﻭﻋﻦ ﺍﺑﻰ ﻫﺮﻳﺮﺓ
ﻟﻴﻪ ﻭﺳﻠﻢ ﺍﻥ ﻓﻰ ﺭﺟﺐ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻨﻪ ﻗﺎﻻ ﻗﺎﻝ
ﺭﺳﻮﻝ ﺍﻟﻠﻪ
ﻳﻮﻣﺎ ﻭ ﻟﻴﻠﺔ ﻣﻦ ﺻﺎﻡ ﺫﺍﻟﻚ ﺍﻟﻴﻮﻡ ﻭﻗﺎﻡ ﺗﻠﻚ
ﺍﻟﻴﻠﺔ
ﻟﺜﻼﺙ ﺑﻘﻴﻦ ﻣﻦ ﺍﻻﺟﺮ ﻛﻤﻦ ﺻﺎﻡ ﻣﺄﺓ ﺳﻨﺔ
ﻭﻗﺎﻣﻬﻤﺎ ﻭ
ﺭﺟﺐ .
অর্থাৎ, হযরত আবু হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু
তায়ালা আনহু এবং হযরত সালমান
ফারিসী রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু
উভয়েই বর্ণনা করেন। আখিরী নবী
সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন
হুযূর পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন, “রজব মাসের এমন
একটি দিন ও রাত আছে ঐ রাত্রে যে
ব্যক্তি ইবাদত-বন্দিগী করবে এবং
দিবাভাগে রোযা রাখবে তার আমল
নামায় ঐ পরিমাণ ছওয়াব লেখা হবে
যেই পরিমাণ ছওয়াব কোন ব্যক্তি একশত
বছর রাতে ইবাদত-বন্দিগী করলে এবং
একশত বছর দিনের বেলায় রোযা
রাখলে তার আমলনামায় যেরূপ সাওয়াব
লেখা হয়। আর সেই মুবারক রাত ও
দিনটিই হচ্ছে রজব মাসের ২৭ তারিখ
তথা পবিত্র শবে মি’রাজের রাত ও
দিনটি।”
(সুবহানাল্লাহ)।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top