logo
news image

বড়াইগ্রামে যুবককে এলোপাতারি কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বড়াইগ্রাম নাটোর

নাটোরের বড়াইগ্রামে শফিকুল ইসলাম (২০) নামের এক যুবককে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার উপজেলার দ্বারীখৈল সাহেব বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আহত যুবক উপজেলার দ্বারীখৈল গ্রামের ইদ্রিস আলী ছেলে। তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে পরে অবস্থার অবনতী হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধায় ইদ্রিস আলী বাদী হয়ে পাঁচ জনকে আসামী করে বড়াইগ্রাম থানায় মামলা করেছে।

স্থানীয় সুত্রে জানাযায়, প্রায় এক বছর আগে সাহেব বাজারের আবুল মন্ডলের ছেলে শফিকুল ইসলামের (৪০) মুদি দোকানে কেরাম খেলা নিয়ে স্থানীয় কিছু যুবকের কথা কাটাকাটি হয়। এই ঘটনার জেরে দুই মাস আগে মনিরুল ইসলামের পুত্র মোস্তাফিজুর রহমানকে(১৯) মাঠের মধ্যে একা পেয়ে আব্দুল হাকিমের পুত্র সজীব হোসেন (২০), হান্নানের পুত্র নয়ন (২৩), আব্দুল হালিমের পুত্র সাগর (১৮) ও সায়েদের পুত্র নাসিম (২০) মারধর করে। বিষয়টি স্থানীয় ভাবে সমাধানের লক্ষ্যে এলাকার গন্যমাণ্য ব্যক্তি বর্গ নিয়ে মৃত সবা প্রামানিক পুত্র রবিউল ইসলাম (৪০) বাড়িতে মিটিংয়ের বসে ছিলেন। মিটিং চলাকালে মারপিট করা ব্যাক্তিরা মিটিং না মেনে হৈল্লর করে বেরিয়ে যাওয়ার সময় মোস্তাফিজুর রহমান এর পক্ষের লোকজনের সাথে শরিফুল ইসলামও পথ রোধ করে। সেই ঘটনার প্রতিশোধ নিতেই কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা হয়।

মামলার সুত্রে জানাযায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে সাহেব বাজারের শরিফুল ইসলাম তার বন্ধু রাসেলের দোকানে সামনে বসেছিল। পিছন থেকে হুসেন আলী ছেলে  লিটন হোসেন (৩৫), মৃত বয়ের প্রাামানিকের পুত্র আব্দুল হান্নান (৫৫), আব্দুল হাকিম (৪৪), আব্দুল হালিম (৩৮) ও আব্দুল হান্নানের ছেলে নয়ন (২২) চাপাতি দিয়ে এলোপাতারি কুপিয়ে আহত করে। স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার অবণতী হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।
বড়াইগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার শারমিন জাহান জানান, শফিকুল ইসলামের শরীরে ১৮ জায়গাতে ক্ষতে চিহ্ন রয়েছে। তার ডান হাত এবং ডান পায়ের রগ কেটে যাওয়ায় অকেজো হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
বড়াইগ্রাম থানার পরিরদর্শ তদন্ত আব্দুর রহিম বলেন, এ ব্যাপারে মামলা হয়েছে। আসামী গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top