logo
news image

লালপুরে তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তিদের পাশে দেশ ফাউন্ডেশন

প্রতিনিধি, নাটোর (লালপুর)
তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সামাজিক বৈষম্য এবং ভেদাভেদ দূর করে তাঁদের সুন্দর স্বাভাবিক জীবনযাপনে সহযোগিতা করতে কাজ করছে দেশ ফাউন্ডেশন। দীর্ঘদিন ধরে চলমান লকডাউনের ফলে তাদের উপার্জনের পথ একেবারে বন্ধ হয়ে গেছে। তাঁরা মানবতার জীবনযাপন করছেন।
বুধবার (১৯ মে ২০২১) নাটোরের লালপুরের তৃতীয় লিঙ্গের আটজনকে খাবার ও নতুন পোশাক হিসেবে একটি করে লুঙ্গি উপহার দেয় তারা। তাঁদেরকে কর্মমুখী করে তুলতে ও লেখাপড়ার জন্য সহযোগিতায় এগিয়ে আসে দেশ ফাউন্ডেশন।
নাটোরের লালপুরের তৃতীয় লিঙ্গের বাদশা নিজেদের দুঃখের কথা তুলে ধরে বলেন, কোথাও কাজ করতে গেলেও কাজ দেয় না, বলে তোদের নরম হাতে তোরা কি কাজ করবি? এই যে লকডাউন শুরু হল কতটা জায়গায় গেলাম একটু খাবারের আশায়, কোথাও তো পেলাম না। বেশিরভাগ জায়গাতে বলে তোরা তো চাঁদা তুলে অনেক টাকা আয় করিস।
ভাই আপনাদের বলছি, ট্রেনে সারাদিন একটা ট্রেন ঘুরে ঘুরে দুইশ টাকা পায় না। সবাই তো টাকা দেয় না। বেশিরভাগ দুই টাকা, পাঁচ টাকা দেয়। কারো দয়া হলে ১০ টাকা দেয়। এখন তো সেই ব্যবস্থাও নাই।
আমরা আটজন একসঙ্গে থাকি খুবই মানবতার কষ্টের জীবন যাপন করছি। চলমান লকডাউন এর ফলে ঈদের দিনের জন্য একটু যে বাজার সদাই  করব সেই টাকাও তো আমাদের কাছে ছিল না। ঈদের দিনে কি আমরা একটু লাচ্চা সেমাই খেতে পারিনি।
দেশ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মাসুক হাসান সোহাগ বলেন, এই উদ্যোগ এগিয়ে নিতে এবং সমাজের অবহেলিত শ্রেণীর (ট্রান্সজেন্ডার) মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াতে সবার সহযোগিতা প্রত্যাশা করে দেশ ফাউন্ডেশন। ভেদাভেদ এবং সামাজিক বৈষম্য দূর করে তাদের সুন্দর স্বাভাবিক জীবনযাপনে সহযোগিতা করতে অনুরোধ করেন তিনি।

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top