logo
news image

ঈশ্বরদীতে ঈদসামগ্রী নিয়ে কর্মহীন বাস শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ালেন ব্যারিষ্টার জিরু

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ
‘করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউনে এক মাস যাবত বাস চলাচল বন্ধ। সম্প্রতি লোকাল বাস চালু হলেও দূরপাল্লার কোচ চালু হয়নি। আমরা বাস শ্রমিকরা পরিবার পরিজন নিয়ে কষ্টে দিন কাটালেও এপর্যন্ত কেউই সহযোগিতার জন্য এগিয়ে আসেনি। দুই দিন পর ঈদ। কঠিন এই পরিস্থিতিতে ব্যারিষ্টার জিরু ঈদের খাদ্যসামগ্রী নিয়ে আজ এগিয়ে এসেছেন। তাই জিরু ভাইয়ের প্রতি আমরা শ্রমিকরা কৃতজ্ঞ।’ মঙ্গলবার রাত দশটায় ঈশ্বরদী বাস টার্মিনালে পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিষ্টার সৈয়দ আলী জিরু কর্তৃক বাস শ্রমিকদের মাঝে ঈদের খাদ্যসামগ্রী বিতরণের সময় পাবনা জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের ঈশ্বরদী শাখার সভাপতি আলতাব হোসেন এভাবেই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

ব্যারিষ্টার জিরু বলেন, করোনাকালে ঈদের আগে সবচেয়ে বেশী অসহায় হয়ে পড়েছেন বাস শ্রমিকরা। এই অবস্থায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে এই খাদ্যসামগ্রী বিতরণের ব্যবস্থা করেছি।

এসময় উপস্থিত উপজেলা নির্বাহী অফিসার পি এম ইমরুল কায়েস ব্যারিষ্টার জিরুর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, পরিবহণ শ্রমিকরা দীর্ঘদিন বেকার। লকডাউনে বাস শ্রমিকরা মানবেতর জীবনযাপন করছে। ঈদের আগে এই সহযোগিতা শ্রমিকদের কষ্ট লাঘবে সহায়ক হবে।

থানার অফিসার ইনচার্জ আসাদুজ্জামান আসাদ বাস শ্রমিকদের মাঝে ব্যরিষ্টার জিরুর খাদ্য সহায়তা বিতরণের কার্যক্রমকে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ বলে জানিয়েছেন।

‘সুপার সনি’ কোচের শ্রমিক মারুফ হোসেন মিলন বলেন, দূর্যোগকালীন সময়ে বাস শ্রমিকদের কেউ কোন সহযোগিতা দেয়নি। গতবছরও জিরুভাই আমাদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে নগদ ২,৫০০ টাকা প্রণোদনার ব্যবস্থা করেছিলেন। এবছরও সেই টাকা পেয়েছি। এরইমধ্যে আজকের খাদ্য সহযোগীতার জন্য আমরা তাঁর প্রতি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ।

‘ঈশ্বরদী ট্রাভেলস্’ এর বিপ্লব সাহা বলেন, করোনাকালে আমরা দূরপাল্লার কোচের শ্রমিকরা চরম দূর্দিনে  আছি। এর আগে কেউই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়নি। এমনকি বাস মালিকরাও হাত গুটিয়ে বসে আছেন। এই প্রথম ব্যারিষ্টার জিরু আমাদের জন্য খাদ্য সহায়তা পাঠিয়েছেন। ঈদের আগে বাস শ্রমিকদের জন্য এই সহযোগিতা অনেক কিছু বলে জানান তিনি।  

প্রায় ২২ কেজি ওজনের এই খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে চাল, ডাল, তেল, আটা, সেমাই, চিনি, আলু ও লবণ রয়েছে বলে জানা গেছে।

এসময় ইউএনও এবং ওসি ছাড়াও আখচাষী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আনসার আলী ডিলু, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কবীর আলী হিরু, ব্যবসায়ী আমির আলী মিরু, উপাধ্যক্ষ্য ইসমাইল হোসেন, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক সুব্রত বিশ্বাস, শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, শ্রমিক নেতা আলাউদ্দিন, যুবলীগ নেতা মইদুল ইসলাম, ছাত্রলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান তুফান, ইফতে খাইরুল আলম ইমন প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

সাম্প্রতিক মন্তব্য