logo
news image

লালপুরে মাদ্রাসা ছাত্র মিষ্টু হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
নাটোরের লালপুরে মাদ্রাসা ছাত্র রুহুল আমিন মিষ্টু হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে মাদ্রাসার ছাত্র, শিক্ষক, পরিজন ও স্থানীয়রা।
মঙ্গলবার (১৬ মার্চ ২০২১) সকাল ১১টায় লালপুর থানার নিকট লালপুর-বাঘা সড়কে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, হাফেজ মো. নাজমুল হুসাইন, হাফেজ মো. ওমর ফারুক, হাফেজ ফয়সলাল, সিয়াম প্রমুখ।
জানা যায়, মুদি দোকানে চুরির অভিযোগে রমজান (১৮) ও রুহুল আমিন মিষ্টু (১৫) নামের দুই সহদরকে গণপিটুনি দেয় জনতা। পরে তাদের উদ্ধার করে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। গত ৯ মার্চ ২০২১ দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার মোহরকয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই দুই ভাই উপজেলার বিশ্বম্ভরপুর গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গভীর রাতে ওই স্থানের রাকিবের মুদি দোকানের টিন কেটে দোকান চুরির সময় স্থানীয়রা টের পেয়ে চিৎকার করলে এলাকাবাসী জড়ো হয়ে দোকান ঘিরে তাদের ধরে ফেলে। পরে তাদের ওই দোকানের ভিতর থেকে ধরে বাইরে নিয়ে এসে গণপিটুনী দেয় জনতা। গণপিটুনীতে তারা মারাত্মকভাবে আহত হলে প্রথমে তাদের লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে মঙ্গলবার তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
গত ১০ মার্চ সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রুহুল আমিন মিষ্টুর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহত মিষ্টুর বাবা মো. আলাউদ্দিন মন্ডল বাদি হয়ে নামিয় ১৪জন ও অজ্ঞাত ৭/৮জনের বিরুদ্ধে ১৩ মার্চ লালপুর থানায় মামলা করেন।
মামলার এজাহারে আলাউদ্দিন বলেন, ভাড়ইমারি রিয়াজউদ্দিন কারিমিয়া কওমী মাদ্রাসার ছাত্র তিন পারা কোরআনের হাফেজ এবং মোহরকয়া দাখিল মাদ্রাসা থেকে জেডিসি পরীক্ষায় এ বছর উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী রুহুল আমিন মিষ্টু ছুটিতে বাড়ি এসে মৌচাক থেকে মধু সংগ্রহের জন্য যায়।
লালপুর থানার ওসি মো. সেলিম রেজা জানান, প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের জন্য পুলিশ তদন্ত করছে। প্রকৃত ঘটনা উদঘাটিত হলে দোষীদের আইনের মাধ্যমে শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top