logo
news image

ঈশ্বরদী পৌরসভা নির্বাচনেে উৎসবমূখর পরিবেশে ভোট গ্রহন

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ
তীব্র শীত উপেক্ষা করে নির্দিষ্ট সময়ের আগেই ভোটপ্রদানের জন্য প্রতিটি করে সামনে ভোটাররা লাইনে দাঁড়িয়ে পড়েন। ভোটারদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা গেছে। সবমিলিয়ে উৎসবের আমেজ ল্ক্ষ্য করা গেছে।
দ্বিতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদী পৌরসভা নির্বাচনে বিকেল ৪টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কাউন্সিলরদের ২-৩টি কেন্দ্রে ঠেলাঠেলি ছাড়া কোথায়ও কোন সহিংসতার ঘটনা এবং এজেন্ট বের করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়নি। ভোট গণনার পর নির্ধারণ হবে জয়-পরাজয়। বিএনপি’র প্রার্থীর পোলিং এজেন্ট দেওয়া হয়নি বলে সকল কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার জানিয়েছেন।
সুষ্ঠু ভোট গ্রহণের লক্ষ্যে নির্বাচনী এলাকায় মোতায়েন করা হয় নির্বাহী ও জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর বাড়তি সদস্য। বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশের স্ট্রাইকিং ফোর্সকে সার্বক্ষনিক টহল দিতে দেখা গেছে। সকাল ১১টার পর কয়েকটি ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করেন পাবনার পুলিশ সুপার (এসপি) মহিবুল ইসলাম খান। এসময় এসপি সাংবাদিকদের বলেন, সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছে।
নির্বাচনে মেয়র পদে ঈশ্বরদী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইছাহক আলী মালিথা (নৌকা), ঈশ্বরদী সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি রফিকুল ইসলাম নয়ন (ধানের শীষ) ও ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের চরমোনাই পীর সাহেবের আমীর মুফতি সৈয়দ মুহা. রেজাউল করীম মাসুম (হাতপাখা) প্রতীকে এবং  নয়টি ওয়ার্ডে ৪৭ জন কাউন্সিলর বিভিন্ন প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
নির্বাচনে মোট ভোটার ৫৫ হাজার ৫৬৮ জন। পুরুষ ভোটার ২৭ হাজার ২৪১ জন। নারী ভোটার ২৮ হাজার ৩২৭ জন। মোট ভোট কেন্দ্র ১৯টি এবং বুথের সংখ্যা ১৫২টি।

সাম্প্রতিক মন্তব্য