logo
news image

সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের ভায়ের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
নাটোরের লালপুর উপজেলার দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নের আট্টিকা-গন্ডবিল রাস্তার সরকারি শিশু ও জাম গাছ বিক্রির অভিযোগ উঠেছে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের ভায়ের বিরুদ্ধে। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে গাছ দুটির ক্রেতা রুলু কে থানায় জিজ্ঞাসাবাদের আটক করেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নের আট্টিকা-গন্ডবিল সড়কে জেলা পরিষদের রোপনকৃত ২টি শিশু ও জাম গাছ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা আট্টিকা গ্রামের আজিজুল আলম মক্কেল মাস্টারের ভাই আব্দুল মান্নান ওরফে মটর বিক্রি করে। ক্রেতাকে সাথে নিয়ে শুক্রবার (১৯জুন) দুপুরে গাছ কাটার চেষ্টা কালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। এ সময় সরকারি গাছ কাটার বিষয়টি পুলিশ নিশ্চিত হলে পাইকপাড়া গ্রামের খোরশেদ আলীর ছেলে রুলু কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে যায়। গাছ বিক্রেতা আব্দুল মান্নান মটর ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় ।
লালপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম রেজা জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসা ব্যক্তিকে রাস্তার পার্শ্ববর্তী জমির মালিক আব্দুল মান্নান মটর গাছ কাটার অনুমতি দেওয়ায়  তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
সরকারি রাস্তায় গাছ লাগালে বা প্রাকৃতিক ভাবে গাছ জন্মালে উক্ত গাছের মালিক কে হবেন জানতে চাইলে লালপুর উপজেলা বন কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম জানান, সরকারি রাস্তার জমিতে যে ভাবেই গাছ জন্মাক, সে গাছের মালিক সরকার। কোন জমির মালিক বা কোন ব্যক্তি উক্ত গাছ সরকারি নির্দেশ ব্যতিরেখে গাছ কাটতে পারবে না।
এ ব্যাপারে লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মুল বানীন দ্যুতি জানান, সরকারি রাস্তার গাছ সরকারি নির্দেশনা ছাড়া কাটা বা বিক্রি করার অধিকার কারো নেই।

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top