logo
news image

বিসিসিআই সভাপতির দায়িত্ব নিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী

ক্রীড়াঙ্গন ডেস্ক।  ।  
আনুষ্ঠানিকভাবে বুধবার (২৩ অক্টোবর) ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতির দায়িত্ব নিলেন দেশটির সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী। আগামী দশ মাস সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন তিনি।
ভারতের দ্বিতীয় অধিনায়ক হিসেবে স্থায়ীভাবে বিসিসিআই সভাপতির দায়িত্ব নিলেন ৪৭ বছর বয়সী গাঙ্গুলী। এর আগে স্থায়ীভাবে বিসিসিআই সভাপতির দায়িত্ব পালন করা প্রথম অধিনায়ক ছিলেন বিজিয়ানাগ্রামের মহারাজা। ১৯৩৬ সালে ইংল্যান্ড সফরে তিন টেস্টে ভারতীয় দলের নেতৃত্ব দেয়া মহারাজা ১৯৫৪ সালে বিসিসিআিই সভাপতি নির্বাচিত হন। আরেক অধিনায়ক সুনিল গাভাস্কার ২০১৪ সালে বিসিসিআইর অন্তবর্তীকালীন সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। তবে তিনি স্থায়ী সভাপতি ছিলেন না।
গাঙ্গুলীর সাথে বোর্ডের নতুন সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর ছেলে জয় শাহ। কোষাধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব নেন সাবেক সভাপতি অনুরাগ ঠাকুরের ছোট ভাই অরুণ ধুমাল।
আর কোন প্রার্থী না থাকায় এরা সকলেই বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।
বোর্ডের সভাপতির দায়িত্ব নেয়ার পর গাঙ্গুলির প্রথম এসাইনমেন্ট হচ্ছে বাংলাদেশ দলের সফর
আগামী মাসে তিন টি-২০ ও দুই টেস্ট সিরিজ খেলতে ভারত সফর করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।
ঢাকাতে বঙ্গবন্ধু জাতীয়স্টেডিয়ামে ২০০০ সালে বাংলাদেশ দলের টেস্ট অভিষেক হয়েছিল গাঙ্গুলীর নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দলের বিপক্ষে। তাই বাংলাদেশ সিরিজটিকে স্মরণীয় করে রাখতে বিশেষ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছেন বিসিসিআই সভাপতি।
আগামী ২২ মে কোলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে স্বাগতিক ভারত ও সফরকারী বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের মধ্যকার দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচটি প্রত্যক্ষ করার জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন গাঙ্গুলী। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী। আসন্ন সফরে ভারত সফরে দু’ম্যাচের টেস্ট ও তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। ২২ নভেম্বর শুরু হবে সিরিজে দুই দলের মধ্যকার দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।
সোমবার ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনঅব বেঙ্গল (সিএবি)-এর বৈঠক শেষে গাঙ্গুলী বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তিনি হয়তো ২১ নভেম্বর রাতেই শহরে আসছেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকেও আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানানো হবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।’
শুধুমাত্র খেলার দেখার জন্যই নয়, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দিয়ে ঘন্টা বাজিয়ে খেলার শুরু করার পরিকল্পনাও করেছেন গাঙ্গুলী। তিনি জানান, ‘যদি সবকিছু ঠিক থাকে, তবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ঘন্টা বাজিয়ে ম্যাচটি শুরু করবেন।’
দ্বিতীয় টেস্টটি গাঙ্গুলীর নিজ শহর কলকাতায় হওয়ায়, ম্যাচটি স্মরণীয় করে রাখার অনেক পরিকল্পনা রয়েছে বিসিসিআই’র প্রেসিডেন্টের। ২০০০ সালে ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের প্রথম টেস্টে লংগার ভার্সনে ভারতের অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক হয়েছিল গাঙ্গুলীর। সেই স্মৃতি ভুলেননি তিনি। এরপর তার অধীনে অনেক সাফল্যের স্বাদ পেয়েছে ভারত। বাংলাদেশের হয়ে প্রথম টেস্টে খেলা ক্রিকেটারদের আসন্ন কলকাতা ম্যাচে আমন্ত্রন জানানোর কথা বলেন গাঙ্গুলী। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের বোর্ডের সাথে কথা বলব। বাংলাদেশের প্রথম টেস্টে অংশ নেয়া ক্রিকেটারদের সংবর্ধনা দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে সিএবি-র। বাংলাদেশের বোর্ড প্রেসিডেন্টকে আমন্ত্রণ জানাব। অনুরোধ করব, সেই দলের সদস্যদের যেন টেস্টের প্রথম দিন আসার অনুমতি দেয়া হয়। এমনকি ভারতীয় দলের খেলোয়াড়দেরও আমন্ত্রণ জানানো হবে। প্রথম দিনের খেলা শেষে দু’দলের সদস্যদের সংবর্ধিত করা হবে।’
এছাড়াও ইডেনের সমর্থকেরা টেস্ট বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচটি দেখতে পাবেন মাত্র পঞ্চাশ টাকার টিকিটে। ইডেনে ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচে বেশি সংখ্যক দর্শক আসার জন্য এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিএবি।
বাংলাদেশ সিরিজের জন্য আগামীকাল দল ঘোষণা করবে বিসিসিআই।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top