logo
news image

রাশিযার উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদলের রূপপুর পামাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প পরিদর্শন

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ
রাশিয়ান সরকারের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদল বৃহস্পতিবার ঈশ্বরদীতে নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের কর্মযজ্ঞ পরিদর্শন করেছেন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমানের নেতৃত্বে এই প্রতিনিধিদল কর্মকান্ড পরিদর্শন ছাড়াও একাধিক মতবিনিময় সভায় অংশ গ্রহন করেন। মন্ত্রী প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি, গুণগত মান পর্যবেক্ষণসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা ও দিক নির্দেশনা প্রদান করেন। এসময় প্রকল্প পরিচালক ড. শৌকত আকবর, রাশিয়ার এটমষ্ট্রয় এক্সপোর্টের হেড অফ কম্যুনিকেশন্স নিনা দেমেনসোভা, রসএনার্গোএটম এর কম্যুনিকেশন্স ডিপার্টমেন্টের ডিরেক্টর আন্দ্রেই টিমোনভ, রসাটমের এনার্জি অফ দ্যা ফিউচার বিভাগের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল আলেক্সান্ডার বেয়বেকভ, রসাটমের ইন্টারন্যাশনাল নেটওয়ার্ক বিভাগের সিনিয়র ম্যানেজার ম্যাক্সিম স্যুসোয়েভ, প্রকল্পের সাইট ইনচার্জ রুহুল কুদ্দুস, প্রকল্পের বৈজ্ঞানিক তথ্য কর্মকর্তা সৈকত আহমেদসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে প্রকল্পের ‘ইনফরমেশন সেন্টার’ অতিদ্রæত চালুর বিষয়ে গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। ইনফরমেশন সেন্টারের ‘সাইট ইন অফিস’ ঈশ্বরদী পৌর চত্বরের একটি ভবনে স্থাপনের জন্য রাশিয়ান প্রতিনিধিরা পরিদর্শন করেন। পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু পৌরসভার পূর্বতন প্রকৌশল বিভাগটি জনস্বার্থে ব্যবহারের জন্য সম্মতি প্রদান করেন।
মন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান বলেন, দেশের মানুষের প্রতি বঙ্গবন্ধু কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অতিমাত্রায় ভালবাসা ও মমত্ববোধের বহি:প্রকাশই হলো এই রূপপুর প্রকল্প। দেশের ৬ কোটি মানুষ এই প্রকল্প হতে বিদ্যুতের সুবিধা ভোগ করবে। আর্ন্তজাতিক মানদন্ড অনুযায়ী সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করে কাজ যথাযথভাবে এগিয়ে চলেছে বলে তিনি জানিয়েছেন।
প্রকল্প পরিচালক ড. শৌকত আকবর বলেন, এই প্রকল্প সম্পর্কে সকল শ্রেণী ও পেশার মানুষের জানার আগ্রহ ও অধিকার রয়েছে। এসব বিবেচনা করেই অতিদ্রæত ইনফরমেশন সেন্টার ঈশ্বরদীতে চালু করা হচ্ছে। রাশিয়ার রসাটম এবং বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের যৌথ উদ্যোগে ইনফরমেশন সেন্টার পরিচালিত হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

সাম্প্রতিক মন্তব্য