logo
news image

ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনি দিয়ে কেউ আইন নিজের হাতে তুলে নিলে কঠোর ব্যাবস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙ্গামাটি।।
বুধবার (২৪ জুলাই) রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার রাণী দয়াময়ী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক-শিক্ষিকা, অভিভাবক ও ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে ‘পদ্মা সেতুর জন্য মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে’ সৃষ্ট গুজব বিরোধী প্রচারনা চালান রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার পুলিশ সুপার মোঃ আলমগীর কবীর, পিপিএম-সেবা ।
এ সময় পুলিশ সুপার ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্য বলেন, ‘পদ্মা সেতুর জন্য মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে’ এটা সম্পূর্ণ গুজব। পদ্মা সেতুর জন্য প্রয়োজন মেধা, শ্রমশক্তি। পদ্মা সেতু উন্নত যন্ত্রপাত্রি, প্রযুক্তি ও দেশী –বিদেশী অভিজ্ঞতাসম্পূর্ণ ব্যাক্তিদের সমন্বয়ে বাস্তবায়িত হচ্ছে। একটি কুচক্রি মহল দেশের শান্তি, অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করার জন্য রুপকথার গল্পের মত গুজব ছড়াচ্ছে। গুজবে বিভ্রান্ত হয়ে নিজের মনে ভীতি সঞ্চার না করার জন্য পুলিশ সুপার ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্য আহ্বান জানান।
পরে পুলিশ সুপার অভিভাবকদের উদ্দেশ্য বলেন, ছেলে ধরা সন্দেহে এ পর্যন্ত যে সমস্ত গণপিটুনি ঘটনা ঘটেছে তাহার একটির ও সত্যতা পাওয়া যায় নি। সন্দেহ থেকে অতিউৎসাহী হয়ে যারা গণপিটুনি দিয়ে মানুষকে মেরেছে তাদের সবাইকে আইনের আওতায় আনা হচ্ছে। ছেলে ধরা এটা নিছক গুজব। অযথা এই গুজবে বিভ্রান্ত হয়ে নিজের মনে ভীতি সঞ্চার না করার জন্য অভিভাবকদের আহ্বান জানান পুলিশ সুপার মহোদয়। পুলিশ সুপার মহোদয় নিশ্চয়তা দিয়ে বলেন, গুজব রোধে পোশাক পরিধান করা পুলিশের পাশাপাশি জেলা পুলিশের একাধিক গোয়ান্দা টিম সাদা পোশাকে কাজ করছে।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top