logo
news image

কানাডায় নটর ডেম কলেজ অ্যালামনাই গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক, টরন্টো (কানাডা)।  ।  
পরস্পরের প্রতি শ্রদ্ধা, ভালোবাসা, সহনশীলতা ও ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে পথ চলার অঙ্গীকার নিয়ে যাত্রা শুরু করল নটর ডেম কলেজ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন কানাডা। টরন্টোর কস্তুরি রেস্তোরাঁয় গত ৬ জানুয়ারি রোববার অনুষ্ঠিত এক বিশেষ সভায় ২০ সদস্যের কার্যকরী কমিটি ঘোষণার মধ্য দিয়ে সংগঠনটির যাত্রা শুরু করে। আগামী ছয় মাসের মধ্যে গঠনতন্ত্র প্রস্তুত ও নির্বাচিত কমিটি গঠন করার লক্ষ্যে কাজ করবে কমিটি।
সভায় নটর ডেম কলেজের প্রাক্তন ছাত্রদের মধ্যে ফিলিপাইনে বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল (অব.) জন গোমেজ, টরন্টোয় বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল নাইম উদ্দিন আহমেদ, কুইবেকে বাংলাদেশের সাবেক অনারারি কনসাল ডা. মো. জামিলুর রহিম ছাড়াও বৃহত্তর টরন্টো ও এর আশপাশের শহর থেকে বিভিন্ন শিক্ষাবর্ষের প্রায় ৮০ জন প্রাক্তন ছাত্র উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ ও কানাডার জাতীয় সংগীত দিয়ে শুরু হয় সভা। এরপর কলেজের প্রাক্তন ছাত্রদের সকলে নিজ নিজ পরিচয় তুলে ধরেন।
বক্তব্য রাখতে গিয়ে জন গোমেজ বলেন, কানাডায় বসবাসরত নটর ডেম কলেজের প্রাক্তন ছাত্রদের নিয়ে গঠিত এ সংগঠনটি পরিচালনায় গণতান্ত্রিক পদ্ধতি অনুসরণ করা হবে। বাংলাদেশে নটর ডেম কলেজ কর্তৃপক্ষ সংগঠনের কানাডা শাখার আত্মপ্রকাশ সম্পর্কে অবহিত আছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
কনসাল জেনারেল নাইম আহমেদ তাঁর সাবেক কলেজ সম্পর্কে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বলেন, প্রায় ত্রিশ বছর আগে নটর ডেম কলেজ থেকে পাস করেছেন তিনি। কিন্তু পাস করার পর পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে কলেজের কোনো অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়া সম্ভব হয়নি। কলেজের কোনো অনুষ্ঠানে এই প্রথম যোগ দিতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত বোধ করছি। সংগঠনটিকে অনুকরণীয় হিসেবে গড়ে তোলার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, সবাই মিলে সামনের দিনগুলোতে কমিউনিটির জন্য অনেক ভালো কাজ করার সুযোগ রয়েছে।
গত ডিসেম্বরে টরন্টোতে কাজ শুরু করা কনস্যুলেটের মাধ্যমে বৃহত্তর টরন্টো ও এর আশপাশের শহরে বসবাসরত বাংলাদেশিদের আগামী দিনগুলোতে কম সময়ে আরও ভালো সেবা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করে নাইম আহমেদ আরও বলেন, কনস্যুলেটকে আধুনিকায়ন করার সব ধরনের প্রচেষ্টা চলছে।
জামিলুর রহিম বলেন, আমি নিজেকে নটরডেমিয়ান হিসেবে পরিচয় দিয়ে থাকি এবং একজন প্রাক্তন ছাত্র হিসেবে এ পরিচয় দিতে আমি গর্ববোধ করি। সংগঠন হিসেবে যেন উদাহরণ সৃষ্টি করা সম্ভব হয় সে লক্ষ্যে সবাইকে কাজ করার অনুরোধ জানান তিনি।
কলেজের প্রাক্তন ছাত্র প্রদীপ স্ট্যানলি গোমেজ বলেন, নটর ডেম কলেজ বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর একটি এবং কলেজের প্রাক্তন ছাত্ররা এ নিয়ে গর্ববোধ করে থাকেন। তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো কলেজ থেকে প্রাক্তন ছাত্ররা কী শিখেছে সেটা তাদের কাজের মধ্য দিয়েই প্রতিফলিত হয়ে থাকে। চলার পথে আমরা ভুল করতে পারি। কিন্তু যেকোনো পরিস্থিতিতে সেটা ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখতে হবে।
সংগঠনটি বিতর্কিত বিষয়গুলো থেকে দূরে থাকবে, এ কথা উল্লেখ করে তিনি রাজনৈতিক, ধর্মীয় কর্মকাণ্ডের মতো স্পর্শকাতর বিষয়গুলো যেন সদস্যদের মধ্যে কোনো ধরনের বিভক্তি আনতে না পারে সে জন্য সবাইকে সচেতন থাকার আহ্বান জানান।
সভায় সংগঠনটির নাম সর্বসম্মতিক্রমে ‘নটর ডেম কলেজ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন কানাডা’ চূড়ান্ত ও প্রতীক অনুমোদন করা হয়। সংগঠনের কার্যকরী কমিটির সদস্যরা হলেন; এ কে এম জহিরুদ্দিন, এম এ বারি মঞ্জু, চঞ্চল সাহা, ফয়সাল আহমেদ, আনিসুর রহমান, পল রয়, কানন বড়ুয়া, কাজী আমিরুল ইসলাম, খাজা ওয়াকার, আশরাফুজ্জামান চৌধুরী, ডা. জ্যাকব মাহমুদ, মোহাম্মদ আলী শাওন, নাজমুল হক, রনি পালমার, জ্যাকব উল্লাস, সাজেদ রহমান, রশিদ কাওসার মোল্লা, মো. আবু সালেহীন, ডা. সেলিম সাইদ ও ডা. মো. জামিলুর রহিম।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top