logo
news image

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী থাকলেন শাহরিয়ার আলম

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা।  ।  
সোমবার বিকেলে নতুন মন্ত্রিসভা শপথ নেবেন। ইতোমধ্যে মন্ত্রীরা কে কোন দায়িত্ব পেয়েছেন সে বিষয়ে সংবাদমাধ্যমকে অবহিত করেছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম। রোববার (৬ জানুয়ারি) বিকালে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান তিনি।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেলেন শাহরিয়ার আলম।  নতুন মন্ত্রী সভায় শাহরিয়ার আলম বহাল থাকায় দৈনিক প্রাপ্তি প্রসঙ্গ পত্রিকার পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিন্দন।  
মো: শাহরিয়ার আলম: (জন্ম: ১ মার্চ, ১৯৭০) বাংলাদেশের একজন রাজনীতিবিদ। তিনি ২০১৪ সালের ১৪ জানুয়ারি থেকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন।
জন্ম ও প্রারম্ভিক জীবন:
রাজশাহীতে পৈত্রিক নিবাস হলেও বাবার চাকুরীর সুবাদে মো: শাহরিয়ার আলম ১৯৭০ সালের ১ মার্চ চট্টগ্রামে জন্মগ্রহন করেন। তাঁর পিতার নাম মোহাম্মদ শামসুদ্দিন এবং মায়ের নাম হাফিজা খাতুন। শৈশব কাটে লালমনিরহাট ও রাজশাহীতে।
শিক্ষা জীবন:
১৯৮৫ সালে রাজশাহী শিরোইল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি এবং ১৯৮৮ সালে রাজশাহী নিউ গভঃ ডিগ্রি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেন শাহরিয়ার আলম। পরবর্তীতে ১৯৯০ এ ঢাকা সিটি কলেজ থেকে বাণিজ্য শাখায় স্নাতক এবং ১৯৯৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়র ইন্সটিটিউট অব বিজনেস এ্যাডমিনিস্ট্রেশন (আইবিএ) থেকে এমবিএ ডিগ্রি লাভ করেন। এছাড়া তিনি ঢাকার মিরপুর সেনানিবাসে অবস্থিত ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজে (এনডিসি) ক্যাপস্টানের সর্ব প্রথম কোর্সটি সম্পন্ন করেছেন।
রাজনৈতিক জীবন:
তিনি ২০১৪ সালের সাধারণ নির্বাচনে রাজশাহী জেলায় অবস্থিত জাতীয় সংসদের ৫৬নং আসন রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট)থেকে সদস্য নির্বাচিত হন।[২] ১৯৯৭ সাল হতে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন সক্রিয় সদস্য হিসেবে কাজ করছেন। তিনি ২০০৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজশাহী জেলার সকল নির্বাচনী এলাকার মধ্যে সর্বোচ্চ ব্যবধানে রাজশাহী-৬ আসন হতে প্রথমবারের মতো জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য থাকাকালে তিনি তথ্য অধিকার আইনের খসড়ার চুড়ান্তকরণে কাজ করেন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য, জলবায়ু পরিবর্তন, শিক্ষা ও দারিদ্র বিমোচন বিষয়ক ‘অল পার্টি পার্লামেন্টারি গ্রুপ’ এবং এমডিজি, পিআরএসপি, বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা এবং বাংলাদেশ উন্নয়ন ফোরাম সংক্রান্ত ‘অল পার্টি পার্লামেন্টারি গ্রুপের’ ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। শাহরিয়ার আলম ‘সংসদ বাংলাদেশ টিভি’র প্রিভিউ কমিটির একজন সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি এর পূর্বে আওয়ামী লীগের তথ্য, গবেষণা ও প্রচার এবং প্রকাশনা বিষয়ক সাব-কমিটির সদস্য ছিলেন। [৩]
ব্যবসা:
পোশাক শিল্প উদ্যোক্তা হিসেবে ১৯৯৫ সালে ব্যবসা শুরু করেন শাহরিয়ার আলম। সফল উদ্যোক্তা হিসেবে তিনি ২০০৭-২০০৮ অর্থবছরে নিটওয়ার ক্যাটাগরিতে জাতীয় রফতানি ট্রফি লাভ করেন। সিআরপির সহায়তায় তাঁর কারখানাগুলোতে শারীরিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয় এবং সর্বাধিক সংখ্যক প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের কর্মে নিয়োগের জন্য তিনি আন্তর্জাতিক ক্রেতাদের নিকট হতে কর্পোরেট সোশ্যাল রেসপন্সিবিলিটি (সিএসআর) পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন।
সমাজসেবা:
রাজশাহীতে ক্রিকেট স্কুল প্রতিষ্ঠা করেছেন শাহরিয়ার আলম। এ স্কুলের ক্রিকেটারগণ জাতীয় দলেও  স্থান করে নিয়েছেন। তিনি বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি ছিলেন এবং বর্তমানে বাংলাদেশ টেনিস ফেডারেশনের সভাপতি ও বাংলাদেশের ক্রীড়া সংগঠন আবাহনী লিমিটেডের একজন পরিচালক। উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য তিনি প্রতিষ্ঠা করেছেন নর্থ বেঙ্গল ডেভেলপমেন্ট ফোরাম।
পারিবারিক জীবন:
শাহরিয়ার আলমের স্ত্রীর নাম আয়েশা আখতার জাহান। এ দম্পতির দুই ছেলে এক মেয়ে।

সাম্প্রতিক মন্তব্য