logo
news image

নাটোর-১ আসনে সংসদ নির্বাচনের প্রার্থী বিমলের গাড়িতে হামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক।  ।  
নাটোর-১ (লালপুর ও বাগাতিপাড়া) আসনে ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী মনজুরুল ইসলাম বিমলের গাড়িতে দুর্বৃত্তরা হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (১০ ডিসেম্বর) বিকেলে নাটোরের লালপুর বাজারে এ হামলার ঘটনা ঘটে
এ ঘটনায় বিমলসহ তিনজন আহত হয়েছেন। এ সময় তাদের বহনকারী মাইক্রোবাসটিতে ভাংচুর চালায় হামলাকারীরা।
প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকেল পৌনে ৫টার দিকে ঐক্যফ্যন্টের প্রার্থী মনজুরুল ইসলাম বিমল কয়েকজন কর্মী নিয়ে মাইক্রোবাসে করে লালপুরের একটি জানাজায় অংশ নিতে যাচ্ছিলেন। এ সময় তাদের বহনকারী মাইক্রোবাসটি লালপুর ত্রিমোহনী স্কুলগেটের কাছে পৌঁছালে লোহার রড ও লাঠি নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা।
হামলাকারীরা মাইক্রোবাসটিতে ভাংচুর চালায়। এ সময় হামলাকারীরা মনজুরুল ইসলাম বিমল ও তার কর্মীদেরকে পিটিয়ে আহত করে। পরে আশপাশের লোকজনের সহায়তায় তাদেরকে লালপুর ফিলিং স্টেশনে নিয়ে আসা হয়। পরে তারা গোপালপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানা গেছে।
এ ঘটনায় আহত ইসমাইল হোসেন জানান, অতর্কিতভাবে তাদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। হামলাকারীদের দেখলে তারা চিনতে পারবেন বলেও তিনি জানান।
এ বিষয়ে মনজুরুল ইসলাম বিমল বলেন, ‘আমি অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেছি। একটা জানাজার নামাজে অংশ নিতে যাচ্ছিলাম। ভাবতেও পারিনি এ অবস্থায় হামলা চালানো হবে।’ নির্বাচনী আক্রোশ থেকেই এ হামলা চালানো হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। ঘটনাটি পুলিশ সুপারকে মুঠোফোনে জানানো হয়েছে বলেও জানান বিমল।
লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জুয়েল বলেন, ‘খবর পাওয়া মাত্র ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’ প্রার্থীর আগমনের বিষয়টি তাকে আগে থেকে জানানো হয়নি বলেও তিনি জানান।
প্রসঙ্গত, মনজুরুল ইসলাম বিমল জেলা বিএনপির সাবেক সহসাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। এলাকাতেও তিনি বিএনপি নেতা হিসেবে পরিচিত। কিন্তু বিএনপি থেকে মনোনয়ন পাওয়ার আশা না থাকায় তিনি ঐক্যফ্রন্টের কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের পক্ষ থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। এ আসনে বিএনপি থেকে মনোনয়ন কিনেছিলেন কামরুন্নাহার শিরীন। শেষ মুহূর্তে বিমল ঐক্যফ্রন্ট থেকে ধানের শীষ প্রতীকে লড়ার টিকিট পান।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top