logo
news image

সিংড়ায় বাড়ির আঙিনায় মধু চাষ

সাইফুল ইসলাম, সিংড়া (নাটোর)।  ।  
নাটোরের সিংড়া পৌর শহরের নিংগইন এলাকায় মহাসড়ক সংলগ্ন এক দৃষ্টি নন্দন ব্যতিক্রম জিন্নাহ মহল। সেই মহলের ভিতরের আঙিনায় মখলেছুর রহমান ওরফে জিন্নাহ নামের এক সাবেক সরকারি কর্মকর্তা শখের বসে শুরু করেছেন মধুচাষ। প্রথমে চিকিৎসার জন্য খাঁটি মধুর কথা চিন্তা করেই স্বল্প আকারে মধু চাষ শুরু করলেও এখন তা বাণিজ্যিক আকার ধারণ করেছে। এতে একদিকে যেমন খাঁটি মধুর চাহিদা মিটছে অন্যদিকে মধুচাষে এসেছে সফলতা।
কৃষি অফিস ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সিংড়ার চলনবিলের মাঠে মাঠে এখন সরিষা। যে দিকে চোখ যায় হলুদ সরিষা ফুলের সমারোহ। আর এই সরিষা ফুলের খাটি মধু সংগ্রহে জিন্নাহ মহলের আঙিনায় কয়েকটি বাক্স স্থাপন করে শখের বসে মধু সংগ্রহ শুরু করেন মহলের স্বত্তাধিকারী মখলেছুর রহমান ওরফে জিন্নাহ। কিন্তু শখের বসে খাঁটি মধু সংগ্রহ এখন তাঁর বাণিজ্যিক আকার ধারণ করেছে। এখন তিনি মধুর চাহিদা মেটাতে প্রায় ৭০টি বাক্স স্থাপন করে মধু সংগ্রহ করছেন। আর শহরে এই দৃষ্টি নন্দন জিন্নাহ মহলটি এখন খাঁটি মধুর মহল নামে পরিচিতি লাভ করেছে।
মখলেছুর রহমান ওরফে জিন্নাহ বলেন, মানুষের চিকিৎসায় খাঁটি মধুর কথা চিন্তা করে তিনি বাড়ির আঙিনায় স্বল্প পরিসরে মধুচাষ শুরু করলেও এখন তা বাণিজ্যিক আকার ধারণ করেছে। আর প্রতি সপ্তাহে এখন প্রায় ১৫০ কেজি মধু সংগ্রহ হচ্ছে। যার প্রতি কেজির দাম ৪’শ টাকা। তিনি আরও বলেন, মধু দিয়ে হাইপেসার, যৌন, ডায়াবেটিস, মুখের নানাবিধ রোগের চিকিৎসা হয়। আর তাই তিনি বড়াইগ্রামের ধানাইদহ গ্রামের ডাঃ মুফতি ফিরোজ উদ্দিনের সহযোগিতায় তার মহলের সামনের অংশে গড়ে তুলেছেন একটি “আধুনিক হারবাল সেন্টার”।
স্থানীয় বাসিন্দা বোরহান উদ্দিন বাবু বলেন, সিংড়া পৌর শহরে এই প্রথম একটি মহৎ উদ্যোগ। খাঁটি মধুর পাশাপাশি চলছে মধু দিয়ে নানাবিধ রোগের চিকিৎসা।
সিংড়া উপজেলা কৃষি অফিসার সাজ্জাদ হোসেন বলেন, চলতি মৌসুমে উপজেলায় প্রায় ৩ হাজার হেক্টর জমিতে সরিষার আবাদ হয়েছে। এখানে ৩’শ মৌ-বাক্স স্থাপন করা হয়েছে। আমরা কৃষি অফিস থেকে মধু চাষে উদ্বুদ্ধ করেছি। এতে সরিষার ফলনও ভালো হবে বলে জানান তিনি।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top