logo
news image

নাটোর চিনিকলের আখ মাড়াই শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর।  ।  
শুক্রবার (১৬ নভেম্বর) নাটোর চিনিকলে ২০১৮-১৯ মৌসুমের আখ মাড়াই শুরু হয়েছে।
নাটোর চিনিকলের এমডি মোহম্মদ শহিদুল্লাহ জানান, এবার নাটোর চিনিকলে চিনি উৎপাদনের লক্ষ্য নির্ধারন করা হয়েছে ১২ হাজার ২৫৫ দশমিক ৮ মেট্রিক টন। এরজন্য আখের প্রয়োজন দেখানো হয়েছে ১ লাখ ৯৮ হাজার ৫৭০ মেট্রিক টন। চিনি আহরণের হার ধরা হয়েছে৭ দশমিক ৭৫ ভাগ। গত মৌসুমে চাহিদা অনুযায়ী আখ সরবরাহ না পাওয়ায় লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়নি। মাত্র ৮ হাজার চিনি উৎপাদিত হলেও গত চার মৌসুমের তুৃলনায় বেশী। শুক্রবার বিকেলে মিলের এমডি মোহম্মদ শহিদুল্লাহর সভাপতিত্বে মিলাদ মাহফিলের মধ্য দিয়ে আখ মাড়াই মৌসুম শুরু হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাজেদুর রহমান খান, সুগার কর্পোরেশনের চিফ টিএস সামসুর রহমান, আখ চাষী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ময়েজ সরকার, শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালণা করেন নাটোর সুগার মিলের উপ ব্যবস্থাপক ফেরদৌসুল আলম।
চিনিকল কর্তৃপক্ষ বলেন নাটোরের প্রধান অর্থকরি ফসল হচ্ছে আখ। প্রতি মৌসুমে মিলে আখ সরবরাহ করে চাষীরা লাভবান হয়। আখের দামও বেশী পায়। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা সত্বেও মাড়াই মৌসুমে মধ্যসত্বভোগীরা আখ মাড়াই করে গুড় তৈরি করায় মিলে চাহিদা অনুযায়ী আখ সরবরাহ পাওয়া যায়না। একারনে মৌসুমে চিনি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ব্যহত হয়। এছাড়া মিলে উৎপাদিত চিনির মুল্য বাজার কম হওয়ায় মিলে উৎপাদিত চিনি বিক্রি না হওয়ায় প্রতি বছর লোকসান গুনতে হচ্ছে চিনিকলগুলোকে।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top