logo
news image

নাটোর-১ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর।  ।  
বিএনপির দুর্গখ্যাত নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) সংসদীয় আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা দৌড়ঝাঁপ করে বেড়াচ্ছেন।  সাবেক সাংসদ শহীদ মমতাজ উদ্দিন পরিবারের তিন জনসহ আওয়ামী লীগেরই রয়েছে ১১ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী। অন্যদিকে দীর্ঘ সময় আসনটির প্রতিনিধিত্ব করা বিএনপি আসনটি পুনরুদ্ধার করতে চায়। এ ছাড়া জাতীয় পার্টিও আসনটিতে হাল ছাড়ছে না।
নাটোর জেলার এটিই একমাত্র আসন যেখান থেকে চারবার এমপি হয়েছেন সাবেক ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ফজলুর রহমান পটল। তিনি দুইবার প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। এই আসন থেকে সংরক্ষিত নারী এমপিসহ একই পরিবারের তিন জন এমপির রেকর্ড রয়েছে। এ ছাড়া এই আসন থেকে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি এমএ তালহা। ফলে স্বাভাবিকভাবেই এই আসনটি সব দলের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।
দুই উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসনে লালপুর উপজেলা থেকে ১৬ জন এবং বাগাতিপাড়া উপজেলা থেকে ৯ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী রয়েছেন। এদের মধ্যে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এই আসনে আওয়ামী লীগের ১১ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী। এর মধ্যে লালপুর উপজেলা থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ৮ জন। অপরদিকে বাগাতিপাড়া উপজেলা থেকে মনোনয়ন চান ৩ জন।
লালপুর উপজেলার মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শহীদ মমতাজ উদ্দীনের ছোট ভাই ও বর্তমান সংসদ সদস্য অ্যাড. আবুল কালাম আজাদ, শহীদ মমতাজ উদ্দীনের সহধর্মিনী ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাবেক সংসদ সদস্য (২০০৮) শেফালী মমতাজ, শহীদ মমতাজ ও শেফালী মমতাজের ছেলে ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক শামীম আহম্মেদ সাগর,  ঢাকা জেলা কামরাঙ্গীরচর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আলহাজ্ব আনিসুর রহমান, বাংলাদেশ কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আতিকুল হক আতিক, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক আরিফুল ইসলাম উজ্জল, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক সিলভিয়া পারভীন লেনি, বাংলাদেশ প্রজন্ম লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা ও বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি লে. কর্নেল (অব:) মো. রমজান আলী সরকার। অপরদিকে বাগাতিপাড়া উপজেলার মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাজেদ উর রহমান চাঁদ, নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বকুল, বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আবুল হোসেন।
এ আসনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী চার জন। এর মধ্যে লালপুর উপজেলা থেকে তিন জন ও বাগাতিপাড়া থেকে একজন মনোনয়ন চান। লালপুর উপজেলার মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন সাবেক ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মরহুম ফজলুর রহমান পটলের সহধর্মিনী কামরুন নাহার শিরিন, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও গোপালপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র মঞ্জুরুল ইসলাম বিমল। বাগাতিপাড়া উপজেলার মনোনয়ন প্রত্যাশী হলেন ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি তারিকুল ইসলাম টিটু।
অন্যান্য রাজনৈতিক দল থেকে ৯ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী এবার মাঠে সক্রিয় রয়েছেন। এর মধ্যে লালপুর উপজেলা থেকে চার জন এবং বাগাতিপাড়া উপজেলা থেকে পাঁচ জন। জাতীয় পার্টির বাগাতিপাড়া উপজেলার মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন সাবেক সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি এম.এ তালহা, জেলা জাতীয় পার্টির সহ সভাপতি আশরাফুল আলম খান ডাবলু, জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. সোহেল রানা।  
অন্যান্য রাজনৈতিক দলের মধ্যে ওয়ার্কার্স পার্টি থেকে দুই জন, জামায়াতে ইসলামী থেকে একজন, জাসদ (ইনু) থেকে দুই জন এবং ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন থেকে একজন মনোনয়ন চাইছেন। এদের মধ্যে লালপুর উপজেলার চার জন এবং বাগাতিপাড়া উপজেলার দুই জন মনোনয়ন প্রত্যাশী রয়েছেন। লালপুর উপজেলার মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন- ওয়ার্কার্স পার্টির উত্তরবঙ্গ আখ চাষী সমিতির সভাপতি অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, আখচাষী নেতা আনসার আলী দুলাল, জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক তাসনিম আলম, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন বাংলাদেশ নেতা মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক। অপরদিকে বাগাতিপাড়া উপজেলার মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন- জাসদ (ইনু) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মো. মোয়াজ্জেম হোসেন, কেন্দ্রীয় কমিটির অপর সদস্য শ্যামল কুমার রায়।
জেলার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই আসনে স্বাধীনতার পর থেকে ১০টি জাতীয় নির্বাচন বিশ্নেষণ করলে দেখা যায়- এই আসনে লালপুরের প্রার্থী চার বার, বাগাতিপাড়ার প্রার্থী তিন বার এবং রাজশাহীর চারঘাটের প্রার্থী একবার বিজয়ী হয়েছেন। তবে সবচেয়ে বেশি সময় মোট চার মেয়াদে সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বিএনপি প্রার্থী।
২০১৪ সালে দশম সংসদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন শহীদ মমতাজ উদ্দিনের ছোট ভাই অ্যাড. আবুল কালাম আজাদ।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top